বিস্তারিত

  • হোম
  • |
  • পুলিশ সদস্যের মরদেহ পাওয়া গেল রাস্তায় পড়ে থাকতে। 
thumb
পুলিশ সদস্যের মরদেহ পাওয়া গেল রাস্তায় পড়ে থাকতে। 
  • 1/9/2022 5:39:12 PM
  • মো: মোস্তাফিজার রহমান
  • 0 - Comments

কুড়িগ্রাম থেকে এক দিনের ছুটি কাটিয়ে  রংপুরের পীরগাছায় নিজ কর্মস্থলএ 
পুলিশ সদস্য তাজুল ইসলাম (৩৫) ফিরছিলেন মোটরসাইকেলযোগে। কিন্তু শেষমেষ  তাঁর কর্মস্থলে আর ফেরা হলো না। পথেই নিভে গেল তার জীবন বাতি। কর্মস্থলে ফেরার পথেই প্রাণ কেড়ে নিয়েছে  অজ্ঞাত একটি গাড়ি।

আজ রবিবার ২০২২ (৯ জানুয়ারি) সকাল বেলা  রংপুর জেলার  কাউনিয়া উপজেলার রাজেন্দ্রবাজার নামক এলাকা থেকেওই পুলিশ সদস্যের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

রোড একসিডেন্টে নিহত পুলিশ সদস্য তাজুল ইসলাম এর বাড়ি কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার গোপালের খামার। তার পিত আব্দুস সালাম।  তিনি দীর্ঘদিন রংপুর জেলার পীরগাছা থানায় কর্মরত ছিলেন কনস্টেবল পদে ।

রংপুর জেলার পীরগাছা থানার কর্তব্যরত ওসি আজিজুল ইসলাম গণমাধ্যকে জানিয়েছেন যে,  গতকাল শনিবার(৮ জানুয়ারী,২০২২) সকাল বেলা  মাত্র এক দিনের ছুটি নিয়ে নিহত তাজুল ইসলাম কুড়িগ্রামে তার  নিজ বাড়িতে  যান। তার ছুটি শেষে হলে আজ রোজ রবিবার (৯ জানুয়ারী, ২০২২)ভোর-বেলা তার নিজ বাড়ি  কুড়িগ্রাম থেকে কর্মস্থলে মোটরসাইকেল যোগে পীরগাছা থানায় ফিরছিলেন নিহত তাজুল ইসলাম। সকাল ৮টা নাগাদ তিনি  রাজেন্দ্রবাজার এলাকায় পৌঁছলে সেখানে একটি অজ্ঞাত গাড়ি তাঁকে চাপা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায় বলে জানা যাচ্ছে ও ধারণা করা যাচ্ছে।  ঘটনাস্থলেই তিনি  মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

রেজাউল করিম নামে ওই  পুলিশ কন্সট্রেবল এর এক ভাই জানান যে , তাজুল ছুটি শেষ করে  ভোরবেলা তার নিজস্য মোটরসাইকেল করে তার কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন তিনি। পথিমধ্যেই  তিনি সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন   বলে আমরা জানতে পেরেছি। নিহত ওই পুলিশ কন্সট্রেবল এর স্ত্রী ও  এক ছেলে এক মেয়ে আছে।

 শাহীন সরকার  নামে কাউনিয়া ফায়ার সার্ভিসের দায়িত্বরত  ইনচার্জ বলেছেন, আজ সকাল ৮.১৫ টা নাগাদ আমরা এক অটোচালকের মাধ্যমে খবর পাই তারপর ঘটনাস্থলে গিয়ে সড়কের পশে তাঁর ক্ষতবিক্ষত নিথর মরদেহ দেখতে পাই।  পুলিশ এসে পরে  তাঁর মরদেহ উদ্ধার করে পশে কাউনিয়া থানায় নিয়ে যায়।

আপনার মন্তব্যঃ

একই ধরনের সংবাদ

আপনার জন্য