বিস্তারিত

  • হোম
  • |
  • আইনমন্ত্রী বললেন , ইসি নিয়োগে নিয়ে বাস্তবিক ভাবে  এত অল্প সময়ে আইন করা  সম্ভব নয়
thumb
আইনমন্ত্রী বললেন , ইসি নিয়োগে নিয়ে বাস্তবিক ভাবে  এত অল্প সময়ে আইন করা  সম্ভব নয়
  • 11/19/2021 4:57:30 PM
  • মো: মোস্তাফিজার রহমান
  • 0 - Comments

আনিসুল হক(আইনমন্ত্রী ) বলেছেন, তাড়াহুড়া করে নির্বাচন কমিশন (ইসি) নিয়োগে  আইন করা ঠিক হবে না।  তিনি আরো বলেন, আগামী ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি শেষ হবে বর্তমান কমিশনের মেয়াদ  । জানুয়ারির শেষ দিকে সংসদের নতুন অধিবেশন । বাস্তবিকভাবে এত স্বল্প সময়ের মধ্যে  সম্ভব নয়  নতুন আইন করা। তাই পুরোনো নিয়ম মেনেই হবে নতুন ইসি নিয়োগ ।

ইসি নিয়োগ আইনের খসড়া হস্তান্তরের পর আইনমন্ত্রী  সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন,  গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন), এর  পক্ষ থেকে  ।  সরকার  ইসি নিয়োগে নতুন আইন তৈরির চিন্তা  করছেম,  তিনি বলেন ।  বিবেচনায় নেওয়া হবে সুজনের খসড়াও ।

শাহদীন মালিক(সুজনের প্রতিনিধিদলের সদস্য)  এ সময়  বলেন,   তাড়াহুড়া করে আইন তৈরির পক্ষে নোই আমরাও। তবে  রাষ্ট্রপতি অধ্যাদেশ জারি করে বৃহত্তর জাতীয় স্বার্থে আইন তৈরি করতে পারেন  ।  নতুন ইসির প্রতি এতে করে করে  সবার আস্থা তৈরি হবে।

বদিউল আলম মজুমদার(সুজনের সম্পাদক) বলেন, এখন অধ্যাদেশ জারির মাধ্যমে আইন করা যেতে পারে এবং পরবর্তীতে  সংসদের  অনুমোদন  নেওয়া যেতে পারে  সময় করে ।

আইনমন্ত্রী  এর পরিপ্রেক্ষিতে বলেন,  এটা ঠিক যে, সরকার জরুরি বিবেচনায় আইন করে অধ্যাদেশ জারির মাধ্যমে । কিন্তু অন্তত সংসদকে পাস কাটিয়ে   ইসি নিয়োগের মতো আইন করা একদম ঠিক হবে না।

শাহদীন মালিক(বিশিষ্ট আইনজীবী ) বলেন, এটা বিরাট কোনো কঠিন আইন নয়। গ্রহণযোগ্য সবার কাছে এমন  ইসি তৈরি করতে চাইলে নিয়োগ দরকার  আইনের মাধ্যমে । তাহলে ইসি গঠন করার বিষয় আসবে না সরকারের নির্দেশে   আর সার্চ কমিটি দিয়ে ।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক তখন  বলেন, আইনি কাঠামোর মধ্যেই রাষ্ট্রপতি সার্চ কমিটি করে ইসি নিয়োগ করেন । কমিটির সুপারিশে ইসি গঠনের এখতিয়ারও রাষ্ট্রপতির। 

সুজন বলছে, নাগরিক সংগঠন সুজন খসড়া আইন প্রণয়ন করেছে  দেশের  বিশেষজ্ঞ ও চিন্তাশীল  নাগরিকদের মতামত নিয়ে ‘নির্বাচন কমিশনার  ও প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ আইন ২০২১’ শিরোনামে এ ।

 

আপনার মন্তব্যঃ

একই ধরনের সংবাদ

আপনার জন্য